Header Ads

জেরুজালেমকে ইসরাঈলের রাজধানী ঘোষণার প্রতিবাদ ছাত্র জমিয়তের

চিত্রে থাকতে পারে: 2 জন ব্যক্তি, পাঠ্য
ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের সভাপতি মুফতী নাছির উদ্দীন খান ও সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) এম. সাইফুর রাহমান আজ এক যৌথবিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক ইসরাইলের জবরদখলকৃত ফিলিস্তিনী শহর আল কুদসকে (জেরুজালেম) ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণা করায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।
ছাত্র জমিয়ত নেতৃদ্বয় বলেন, মুসলমানদের প্রথম ক্বেবলা পবিত্র মসজিদুল আকসাকে ঘিরে গড়ে ওঠা জেরুজালেম নগরী ফিলিস্তিনীদেরই ভূমি। এই ভূমি ইসরাইল অবৈধভাবে জবর দখল করে রেখেছে। বিশ্ব সম্প্রদায় ইসরাইলের এই জবরদখলকে মেনে নেয়নি। মধ্যপ্রাচ্যে টেকসই শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হলে জেরুজালেমকে ফিলিস্তিনের রাজধানী ঘোষণা করেই স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে হবে।
তারা বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী বলে যে ঘোষণা দিয়েছেন, এটা অবৈধ এবং অন্যায়। যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্ত অন্যায়ের পক্ষে এবং আগ্রাসী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলকে একতরফা সমর্থন দেওয়ার শামিল। যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তে গোটা মধ্যপ্রাচ্যে নতুন করে উত্তেজনা ও সংঘাত ছড়িয়ে পড়তে পারে। এই সিদ্ধান্তে শুধু মুসলিমরাই হতাশ হয়নি বরং বিশ্বের শান্তিকামী সকলেই আঘাত পেয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের এই অন্যায় ঘোষণায় বিশ্বের দেশে দেশে প্রতিবাদ ও নিন্দার ঝড় বয়ে যাচ্ছে।
বিশ্বের ৩য় বৃহৎ মুসলিম রাষ্ট্র হিসেবে ট্রাম্পের এ নোংরা অপরাজনীতির প্রতিবাদ জানাতে বাংলাদেশ সরকারকে আহবান জানিয়ে ছাত্র জমিয়ত নেতৃদ্বয় আরো বলেন, জেরুজালেমকে রাজধানী করে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গড়ার পক্ষে বিশ্ব জনমত গড়ে তুলতে আরব দেশগুলোর পাশাপাশি বাংলাদেশকেও মুখ্য ভূমিকা পালন করতে হবে। ছাত্র জমিয়তের উভয় নেতা বাংলাদেশের মুসলমানদেরকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়িয়ে জেরুজালেম উদ্ধারের আওয়াজে সোচ্চার হওয়ার আহবান জানান।

Powered by Blogger.