Header Ads

টার্গেট ১০ হাজার যুবকের জমিয়তের সাথে সম্পৃক্ততা- যুব নেতা সৈয়দ উবায়দুর রাহমান

নিউজ শেয়ার অনলাইন ডেস্ক- সফল ভাবে সম্পন্য হয়েছে সিলেট মহানগর যুব জমিয়তের কাউন্সিল, টার্গেট ১০ হাজার যুবকের জমিয়তের সাথে সম্পৃক্ততা- যুব নেতা সৈয়দ উবায়দুর রাহমান

গতকাল নগরীর অভিজাত হোটেল ডালাসে অনুষ্টিত হয় জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ'র অঙ্গসংগঠন যুব জমিয়ত বাংলাদেশ সিলেট মহানগর শাখার কাউন্সিল । কাউন্সিলে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ন মহাসচিব সাবেক এমপি এড. মাও. শাহিনুর পাশা চৌধুরী সহ জমিয়ত, যুব জমিয়ত ও ছাত্র জমিয়তে কেন্দ্রীয় এবং স্থানীয় নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে মহানগর জমিয়ত সেক্রেটারী হাফিজ মাও. ফখরুযযামান সাহেব মাও. কবির আহমদকে সভাপতি, সৈয়দ উবায়দুর রহমানকে সহ সভাপতি, আব্দুল আহাদ আতিক'কে সাধারণ সম্পাদক এবং আব্দুল করিম দিলদারকে সাংগঠনিক সম্পাদ করে ৫১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা করেন ।

কাউন্সিল পরবর্তী নিজের প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করতে গিয়ে আন্দোলন সংগ্রামে সিলেটে যুব জমিয়তের বহুল আলচিত যুব নেতা সৈয়দ উবায়দুর রহমান তাঁর ফেইসবুক আইডি হতে একটি স্টেট্যাস দেন । যাকে কেন্দ্র করে সিলেট জমিয়তের সর্বস্থরের নেতা-কর্মীরা আশার আলো দেখতে পাচ্ছেন । বহু দিন হতে জিমিয়ে পড়া মহানগর যুব সংগঠন পুনরায় প্রণচাঞ্চল্য ফিরে পাবে, ঘোরে দাড়াবে তার গৌরবোজ্জ অতিতের মত, এটিই সবার কামনা ।

সৈয়দ উবায়দুর রহমান তাঁর প্রতিক্রিয়ায় বলেন- সফল ভাবে সম্পন্ন হয়েছে সিলেট মহানগর যুব জমিয়তের আজকের কাউন্সিল । আমাকে নিয়ে উতসুক আমার অনেক বন্ধু আমার কাছে জানতে চান বর্মান কমিটিতে আমি কোন দায়ীত্বশীল হলাম বা মুরব্বিরা আমাকে কোন পদ দিলেন? আমি বলতে চাই- আমি নিজেকে আকাবির-আসলাফের রেখে যাওয়া আমানত জমিয়তে সহ সভাপতির মত পদের যোগ্য বলে মনে না করলেও মুরব্বীদের সু'নজরে আমি সিলেট মহানগর যুব জমিয়তের বর্তমান কমিটির সহ সভাপতি । এটি আমার প্রতি মুরব্বিদের মহা অর্পন । মুরব্বিদের দেয়া এমন দায়ীত্ব আমি উবায়দুরের সামনে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাড়িয়েছে । আমাদের কমিটির মেয়াদ মাত্র তিন বছর হলেও আমার টার্গেট এই মেয়াদে কমপক্ষে ১০ হাজার যুবকের একটি বিশাল কাফেলাকে জমিয়তের সাথে সম্পৃক্ত করা । পারবে কি নতুন সহ সভাপতি সৈয়দ উবায়দুর এত বড় চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে কাঙ্কিত টার্গেট পুরণে সফল হতে? আমার মন বলে এটি কোন ব্যাপার না । সে জন্য প্রয়োজন যে জিনিষটির তা হলো ঐক্য । আজকের কাউন্সিলে ঘোষিত আমরা ৫১ জন সদস্য একে অপরের হাতে হাত রেখে, কাদে কাদ মিলিয়ে, পাছে লোকে কিছু বলে লাত্থি মেরে পিছে ফেলে ঐক্যবদ্ধ ভাবে যদি আমাদের সভাপতি বড় ভাই মাও. কবির আহমদের নেতৃত্বে সিলেট মহানগরের মাঠে ময়দানে জাপিয়ে পড়ি তাহলে অবশ্যই সিলেটের মানুষ আগামি তিন বছরের মাঝেই মহানগ যুব জমিয়তে চমক দেখতে পাবে । মহানগরির অলি-গলি মাঠ-ময়দান সবই জুব জমিয়তের মিছিলে মুখরিত হবে ইনশা আল্লাহ । তাই আসুন আকাবিরদের স্বপ্ন পুর্ন করি । আসলাফদের আশা বাস্তবায়ন করি । দেখিয়ে দেই সবাইকে আমরাও কিছু করতে পারি ।
Powered by Blogger.