Header Ads

রোহিঙ্গাদের হত্যা-নির্যাতনের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ায় মুসলিমদের বিক্ষোভ

মায়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলিমদের হত্যা ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছে অস্ট্রেলিয়ার রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের সদস্যরাসহ দেশটির মুসলিমরা।
বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে দেশটির পররাষ্ট্র ও বাণিজ্য বিভাগের বাইরে এই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।তারা বর্তমান সহিংসতা অবসানের জন্য ফেডারেল সরকারকে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার জন্য অনুরোধ জানান।
বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে মায়ানমারের জাতিগত সংখ্যালঘুদের ওপর সামরিক হামলার বিরুদ্ধে বৃহত্তর আন্তর্জাতিক হস্তক্ষেপের আহ্বান জানানো হয়।
মায়ানমারের রাখাইন রাজ্যের প্রায় ৮ লাখ মুসলিম রোহিঙ্গা তাদের অধিকার বিশেষ করে দেশটির নাগরিকত্ব চেয়ে আসছে।
আর সরকার দীর্ঘদিন সেই দাবিকে উপেক্ষা করে আসছে। শুধু উপেক্ষা নয়, রীতিমত রাষ্ট্রীয় মদদে দমনপীড়ন চালানো হয় রোহিঙ্গাদের ওপর, যার সর্বশেষ নজির গত ২৪ আগস্ট।
মায়ানমারের সেনাবাহিনী অভিযানের ঘোষণা দেওয়ার আগেই রাখাইন অবরুদ্ধ করে রাখে। এরই বদলা নিতে রোহিঙ্গা যোদ্ধারা অন্তত ২৫টি পুলিশ পোস্ট ও একটি সেনাক্যাম্পে ওইদিন প্রবেশের চেষ্টা করলে সংঘর্ষ হয়।
এ ঘটনার পর থেকে দেশটির সেনাবাহিনী ও চরমপন্থী বৌদ্ধদের নির্যাতন থেকে বাঁচতে দুই সপ্তাহেরও কম সময়ে প্রায় ১ লাখ ৪৬ হাজার রোহিঙ্গা প্রতিবেশি বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে বলে জাতিসংঘ জানিয়েছে। সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারা প্রায় ৪০০ জনকে হত্যা করেছে এবং সৈন্যরা ‘ক্লিয়ারেন্স অপারেশন’ পরিচালনা করছে।
জাতিসংঘের মহাসচিব মায়ানামরের চলমান পরিস্থিতিকে জাতিগত নির্মূল বলে বর্ণনা করেছেন।
জোরপূর্বক দেশ ত্যাগে বাধ্য করা রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের জন্য একটি বিশেষ পুনর্বাসন কর্মসূচি বিবেচনা করার জন্য ফেডারেল সরকারের প্রতি আহ্বান জানান অস্ট্রেলিয়ার রেফিউজি কাউন্সিল।
উৎসঃ   rtnn
Powered by Blogger.