Header Ads

রোহিঙ্গা হিন্দুদের রক্ষায় ঝাঁপিয়ে পড়েছেন মোদি, মুসলমানদের জন্য কে?

বিশেষ প্রতিনিধি
মিয়ানমারের রাখাইনে দেশটির সেনাবাহিনীর নির্যাতনের মুখে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের পাশাপাশি হিন্দু সম্প্রদায়ের অনেক মানুষও পালিয়ে এসেছেন। বাংলাদেশ সীমান্তের জিরো পয়েন্টে অবস্থান করা এসব হিন্দু নারীরা জানিয়েছেন, রাখাইনে মুসলিমদের সঙ্গে তাদের ওপরও সেনাবাহিনী হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে।
আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমেও এমন খবর পেয়ে হিন্দুদের রক্ষায় ঝাঁপিয়ে পড়েছেন নরেন্দ্র মোদি। যদিও মাত্র তিন দিন আগে তার সরকার মিয়ানমার সরকারের পক্ষে দাঁড়িয়ে বিবৃতি দিয়েছিল। রোহিঙ্গাদের হত্যার বিষয় কিছুই বলেনি। এমনিক তার দেশের রোহিঙ্গাদের বের করে দেয়ার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কিন্তু হিন্দুদের হত্যার খবর পেয়ে এক লাফে ঝাঁপিয়ে পড়লেন মোদি।
গত ২৫ আগস্ট থেকে এক সপ্তাহে রাখাইন রাজ্যের ফকিরাবাজারের ৭৫টি হিন্দু পরিবারের ঘরবাড়িতে হামলা ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ৮৬ জন হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষকে হত্যা করা হয়েছে।
এমন প্রেক্ষাপটে মিয়ানমারের নোবেল বিজয়ী নেত্রী অং সান সুচির সঙ্গে আলোচনা করতে দেশটিতে দু’দিনের সফরে যাচ্ছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আগামী মঙ্গলবার তিনি মিয়ানমার পৌঁছাবেন। বর্তমানে মোদি ব্রিকস সম্মেলনে অংশ নিতে চীনে অবস্থান করছেন।
ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এসব তথ্য জানিয়েছে।
মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা শ্রীপ্রিয় রঙ্গানাথান জানান, রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে যে সংকট চলছে, সেটি কীভাবে সমাধান করা যায়, মিয়ানমারের নেত্রীর সঙ্গে বিষয়ে নিয়ে আলোচনা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গা সমস্যা মিয়ানমারই তৈরি করেছে। সমাধানও তাদের হাতে। প্রতিবেশী দেশ হিসেবে এসব নিয়ে আমাদের যথেষ্ট উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ রয়েছে।’
দুঃখের বিষয় হল, হিন্দুদের রক্ষায় হিন্দু নেতা মোদি ঝাঁপিয়ে পড়লেও মুসলমানদের রক্ষায় তাদের কোনো নেতা নেই।
Powered by Blogger.