Header Ads

সিলেট হেফাজতের ব্যানারে কতিপয় সমালোচিত ব্যক্তির অনৈক্যের সৃষ্টি !

হেফাজতের ব্যানারে সকল ইসলামী দল 
সিলেটে ঐক্যের ভ্রাতৃত্বে এরা কারা অনৈক্যের সৃষ্টিকারী ?
রোহিঙ্গা গণহত্যার প্রতিবাদে, আজ সিলেট শহরে হেফাজতে ইসলাম ও সিলেট ইমাম সমিতির সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত হয় স্মরণ কালের বৃহৎ প্রতিবাদ সমাবেশ । একি সভায় সমবেত হয় সিলেট শহরের সকল মসজিদের মুসল্লিরা । একি মঞ্চে সমাসীন হন সরকারী বিরোধী দলের হেভিওয়েট কেন্দ্রীয় নেতারা । রাজনৈতিক চীর প্রতিধন্ধি আওয়ামীলীগের সাবেক মেয়র কামরান সাহেব ও বর্তমান মেয়র বি এন পি নেতা আরিফুল হক সহ সিলেটের সকল ইসলামী, সেকুলার রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ । তাদের এক মঞ্চে উপস্তিতি গোটা দেশের জন্য শিক্ষা হয়ে থাকবে । দেশের সর্বসাধারণ সিলেটের ভ্রাতৃত্বে বন্ধনের উপমা হিসেবে এমন মঞ্চের প্রশংসায় পঞ্চমুখর । ইতিপূর্বেও আমরা সিলেটের মাটিতে একি মঞ্চে ভিন্নমতের লোকদের একত্রিত হতে দেখেছি । সেজন্য ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে, আজ সিলেট গোটা বিশ্বের রোল মডেল হয়ে আছে । সিলেটের সুনাম সুখ্যাতি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে আছে ।
কিন্তু ! আফসোস ! কিছু অপরিণামদর্শী জুব্বা পরা লোক সিলেটের ঐতিহ্যকে ধূলায় মিশাতে উঠে পড়ে লেগেছে । ওরা যেমন তাদের জাতী ভাই আলিম উলামাদের মধ্যে অনৈক্যের সৃষ্টি করে সিলেটে অরাজকতা করছে ঠিক তেমনি আজকে সম্মিলিত সমাবেশে যোগ না ভিন্ন ব্যানারে নিজেদের জাতের পরিচয় দিলো ।
এদের কারণে সিলেট শহরে আলিমরা আজ মুখ দেখাতেও লজ্জাবোধ করে । এদের মস্তানি, গুণ্ডামির কলঙ্কিত ইতিহাস ইতিপূর্বে সিলেট বাসী লক্ষ্যে করেছে । এরা বুঝি আবার আকাবিরের দল জমিয়তের ঠিকাদার ! এদের ব্যানারেই ডাকা হয়েছে রোড মার্চ ! যা সিলেটবাসী ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে । সিলেটের ভ্রাতৃত্ব নষ্ট করে ওরা সিলেটের টাকায় খেয়ে বেঁচে সিলেটীদেরকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখায় ।
শুনে রেখো অহে ফাত্তানের দল ! সিলেটীরা তোদের মত ছোট মন নিয়ে চলেনা । সিলেটের ভ্রাতৃত্বের বন্ধন চীর অটুট । সিলেটে বাস করে সিলেটীদের প্রীতি ভ্রাতৃত্বের বন্ধ দেখেও কি তোমরা কিছু শিখতে পারনি ? যদি শিখতে না পারো অন্তত সিলেটীদের ভ্রাতৃত্বের বন্ধন নষ্ট করা থেকে বিরত থাকো । নতুবা একদিন সিলেটীরা তোদের তাড়িয়ে দিবে ।
নীচের দুটি ছবি লক্ষ্যে করে দেখেন ভালো করে-
প্রথম ছবিতে চীর প্রতিদন্ধি, ভিন্নমতের, ভিন্ন দলের জাতীয় রাজনৈতিকরা একি মঞ্চে পাশাপাশি সভা করছেন ।
দ্বিতীয় ছবিতে কতিপয় জুব্বাধারী লোকেরা একা একা সভা করছে !
ছিঃ এমন জুব্বাধারী শয়তানদের । এদের চিহ্নিত করে রাখুন এরাই আকাবিরের দলের ঘাতক ! এরা কখনো কারো সাথে মিশতে চায়না । ওরা কখনো ঐক্যে চায়না । ওরা হিংস্র বনের পশু মনে হয় ।
সরজমিনে খবর নিয়ে জানা যায়, গত সপ্তাহে সিলেটের সকল ইসলামী দলের সাথে ইমাম সমিতির সমন্বয় হয় । আপন আপন ব্যানারে বিক্ষোভ সহকারে ইমাম সমিতির পূর্বের ডাকা সমাবেশে সকলে মিলিত হবেন । কথা মত সকলেই ইমাম সমিতির সমাবেশে যোগ ও দেন । কিন্তু মনসুরুল হাসান রায়পুরি ও চিহ্নিত সন্ত্রাসী বেলালের নেতৃত্বে হেফাজতের নামে পৃথক ব্যানারে কোর্ট পয়েন্টে মাওলানা রায়পুরি গুটি কয়েক লোক নিয়ে পৃথক মিটিং করেন । রায়পুরির এমন কাণ্ডে ক্ষোভে ক্রমেই ফুঁসছে সিলেটের সকল মহল । 

ইমাম সমিতির মঞ্চে হেফাজত সহ সকলে 

রায়পুরির নেতৃত্বে কতিপয় অনৈক্যেকারী

Powered by Blogger.