Header Ads

নতজানু হয়ে রোহিঙ্গা গণহত্যা বন্ধ করা যাবে না, আরাকানকে স্বাধীন করতে হবে: আল্লামা কাসেমী

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর আল্লামা নূর হুসাইন কাসেমী বলেছেন, নতজানু হয়ে রোহিঙ্গা মুসলিম গণহত্যা বন্ধ করা যাবে না। রোহিঙ্গা মুসলিম রক্ষা এবং মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস বন্ধে বাধ্য করতে মিয়ানমার সরকারের সাথে কুটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন এবং অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করার জন্য জাতিসংঘ, ওআইসিসহ সকল মুসলিম রাষ্ট্র প্রধানদের ভুমিকা রাখতে হবে। রোহিঙ্গা মুসলমানদের জন্য আরাকানকে স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার কর্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে।
আজ বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জীর সভাপতিত্বে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন কর্তৃক আয়োজিত “রোহিংগা সংকট: সমাধানের সন্ধানে” শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে বক্তব্য দানকালে এসব কথা বলেন তিনি।
এ সময় আল্লামা কাসেমী সরকার লক্ষ্য করে বলেন, রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে সরকারকে কুটনৈতিক প্রয়াসের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে সম্পৃক্ত করে সমস্যার আশু সমাধান করতে হবে। কুটনৈতিক প্রয়াস ব্যর্থ হলে দেশবাসীকে সাথে নিয়ে সামরিক হস্তক্ষেপের মাধ্যমে আরাকানকে স্বাধীন করে রোহিঙ্গাদের জন্য নিরাপদ জনপদ নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সরকারকে সাহসী ভূমিকা রাখতে হবে।
বৈঠকে আরো বক্তব্য রাখেন, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহীম বীর প্রতীক, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান জনাব শামসুজ্জামান দুদু, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের আমীর ড. মাওলানা মোঃ ঈসা শাহেদী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর অধ্যাপক আনিসুজ্জামানসহ, মাওলানা আবুল কালাম, মাওলানা সাখাওয়াত হুসাইন, মাওলানা মুশতাক আহমাদ, ড. আহমাদ আব্দুল কাদির, মাওলানা মূসা বিন ইজহার, মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজী, কাজী আজিজুল হক, কাজী আবুল খায়ের প্রমুখ।
Powered by Blogger.