Header Ads

মিয়ানমারে গণহত্যা মধ্যযুগের বর্বরতাকেও হার মানিয়েছে’

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে গণহত্যা, নারী-শিশু-বৃদ্ধসহ সকলকে পুড়িয়ে ও জবাই করে পৈশাচিক কায়দায় হত্যা করার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে শিক্ষক কর্মচারী ঐক্যজোট।
বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়।সংগঠনের চেয়ারম্যান ও বিএনপির গণশিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ মো. সেলিম ভূঁইয়ার বলেন, ‘মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে যেভাবে মানুষ পুড়িয়ে ও জবাই করে হত্যা করা হচ্ছে তা মঙ্গল নেতা চেঙ্গিস খান ও হালাকু খানকেও হার মানিয়েছে। মেয়েদেরকে ধর্ষণ করে পুড়িয়ে দেয়া হচ্ছে, গর্ভবতী নারীদের পেটে পাড়া দিয়ে সন্তান ভূমিষ্ঠ করে মা ও সন্তানকে পুড়িয়ে দিয়েছে। ছোট শিশুদের গলাটিপে হত্যা ও জীবন্ত শিশুদের পানিতে ডুবিয়ে মারার দৃশ্য কোনভাবেই সহ্য করা যায় না। লক্ষ লক্ষ রোহিঙ্গা মুসলিমরা এখনও বন-জঙ্গলে লুকিয়ে আছে। এখন বন-জঙ্গল গান পাউডার দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। এই অমানবিক দৃশ্য সহ্য করা যায় না।’
সেলিম ভূঁইয়া বলেন, ‘রোহিঙ্গা মুসলিমদের রক্ষার জন্য দলমত নির্বিশেষে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিবাদ করতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গা মুসলিম ভাই বোনদের রক্ষার জন্য আমরা শিক্ষক সমাজ যুদ্ধ করতেও প্রস্তুত আছি।’
সেলিম ভূঁইয়া বলেন, ‘বার্মার জঙ্গি বিমান অন্যায়ভাবে ১৭ বার বাংলাদেশে প্রবেশ করার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী একটি সুশৃঙ্খল ও কৌশলী বাহিনী। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শক্তি সম্পর্কে তাদের না জানার কথা নয়। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী তার প্রমাণও দিয়েছে।’ 
তিনি শিক্ষক সমাজকে রোহিঙ্গা মুসলিমদের সাহায্যে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
সেলিম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মাওলানা মো. দেলোয়ার হোসেন, মো. জাকির হোসেন, অধ্যাপক মো. আলমগীর হোসেন, মোল্লা নজরুল ইসলাম, অধ্যাপক আবু সাইদ, সাহাদাৎ হোসেন, অধ্যক্ষ আবদুর রহমান, অধ্যাপক আবদুল হাকিম, রকিবুল ইসলাম রিপন, অধ্যাপক কাজী মাইনউদ্দিন, অধ্যাপক মনোয়ার হোসেন রানা ও অধ্যাপক জাকির হোসেন প্রমুখ। 
ব্রেকিংনিউজ
Powered by Blogger.