Header Ads

বিচারপতি সিনহাকে হুশিয়ারি ছাত্রলীগ সভাপতির

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে ‘প্রধান বিচারপতির মন্তব্য’ ছাত্রলীগ মেনে নেবে না বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ।
বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আর কোনও কথা না বলার জন্যও সাবধান করে দেন ছাত্রলীগ সভাপতি।
রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এক আলোচনা সভায় সোহাগ বলেন, “প্রধান বিচারপতিকে শ্রদ্ধা করি, কিন্তু উনি ষোড়শ সংশোধনীর রায়ে যা বলেছেন, তা ছাত্রলীগ মেনে নিবে না।”
বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আর কোনও কথা না বলতে প্রধান বিচারপতিকে সাবধান করে ছাত্রলীগ সভাপতি বলেন, “আপনার হয়তো অতীত মনে নেই। অতীতে অনেক বিচারপতি হাই কোর্ট থেকে পালিয়ে গেছে, আপনি তা ভুলে গেছেন। জাতির স্থপতিকে নিয়ে আর একটা কথাও বলবেন না।
“আপনি বলেছেন- অনেক ধৈর্য্য ধরেছেন, পাকিস্তানের কথা বলেছেন। বঙ্গবুন্ধ শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে পাকিস্তান স্বাধীন হয়নি। তিনি বাংলাদেশকে স্বাধীন করেছেন।”
বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে হল শাখা ছাত্রলীগ আয়োজিত শোক দিবসের এই আলোচনায় প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।
তিনি বলেন, তরুণ প্রজম্মকে নিয়ে ২০২১ সালের মধ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে সরকারের রূপকল্প বাস্তবায়নের সংগ্রামে ঐতিহ্যবাহী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ তথা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নেতৃত্ব দেবে।
“ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে নেতৃত্ব দেবে বর্তমান তরুণ প্রজম্ম, আর সেই তরুণ প্রজম্মকে গড়ে ওঠতে হবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়। হতে হবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আদর্শিত।”
ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান বলেন, যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে, প্রকৃতিই তাদের বিচার করেছে।
“বুন্দকের নল উঁচিয়ে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে জিয়া ক্ষমতায় আসে, সেই জিয়া চট্টগ্রামে সামরিক বাহিনীর গুলিতে নিহত হয়েছে।”
অমর একুশে হল মিলনায়তনে এই অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলাম, ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যাল শাখা সভাপতি আবিদ আল হাসান ও সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্স বক্তব্য দেন।
হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এহসান উল্লাহ পিয়ালের সঞ্চালনায় আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের হল শাখা সভাপতি আব্দুল জব্বার রাজ।
বিডিনিউজ
Powered by Blogger.