Header Ads

ইসলামী রাজনীতি গতিশীল করা সময়ের দাবী

ইসলামী রাজনীতি গতিশীল করা সময়ের দাবী
১৩ আগস্ট রবিবার পূর্ব লন্ডনের মাইক্রো বিজনেস সেন্টারে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ্ইউকের উদ্যোগে বিরাট ইসলামী সম্মেলন অনুষ্ঠিত
 হয়। ইউকে জমিয়তের সভাপতি মাওলানা শুয়াইব আহমদের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারী মাওলানা সৈয়দ তামীম আহমদ ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা সৈয়দ নাঈম আহমদ এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এ ইসলামী সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জমিয়তে উলামায়ে ইসরাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি মাওলানা জুনায়েদ আল হাবীব!
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মোফাসসিরে কোরআন মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারী, বিশিষ্ট ওয়ায়েজ মাওলানা নজমুদ্দীন কাসিমী, মাওলানা শায়খ তরীকুল্লাহ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ইউকের সিনিয়র সহ সভাপতি মুফতি আব্দুল মুনতাকিম, কমিউনিটি নেতা কেএম আবু তাহের চৌধুরী, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস যুক্তরাজ্য শাখার সেক্রেটারী মাওলানা ফয়েজ আহমদ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ইউকের ট্রেজারার হাফিজ হুসাইন আহমদ বিশ্বনাথী, সৈয়দপুর শামছিয়া সমিতি ইউকের সভাপতি পীর আহমদ কুতুব, খেলাফত মজলিস ইউকের সহ সভাপতি মাওলানা হাসান নূরী, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ইউকের সহকারী সেক্রেটারী মাওলানা শামছুল আলম কিয়ামপুরী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ জিয়া উদ্দিন, উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোহাম্মদ আলী, কমিউনিটি নেতা নূর বকস, ইউকে জমিয়তের যুব বিষয়ক সম্পাদক মুফতি সৈয়দ রিয়াজ আহমদ, সহকারী ট্রেজারার মুফতি মোতাহির, প্রশিক্ষন সম্পাদক হাফিজ মাওলানা হুসাইন আহমদ, তাফসির বিষয়ক সম্পাদক হাফিজ মাওলানা মোস্তাক, আন্তর্জাতিক সম্পাদক মাওলানা ইলিয়াস, জমিয়ত নেতা সৈয়দ রফিকুল হক রফু মিয়া, সৈয়দ শামশিয়া সমিতি ইউকের সহ সভাপতি বিএনপি নেতা সৈয়দ জিল্লুল হক, সাধারণ সম্পাদক ধলা মিয়া, ইউকে জমিয়তের কেন্দ্রীয় সদস্য হাফিজ রশিদ আহমদ, মাওলানা খালিদ, মাওলানা সাইদুর রহমান, শেখ মোদাব্বির হোসেন মধু মিয়া, আলহাজ্ব খালিছ মিয়া, হাজি গিয়াস উদ্দিন প্রমুখ।
জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ইউকের সভায় বক্তাগন জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের দীর্ঘ এক শতাব্দীর ঐতিহাসিক অবদান, অব্যাহত কর্মপ্রচেস্টা ও ত্যাগের মহিমায় ভাস্বর ইতিবাচক দ্বিনী সংগ্রামের ইতিকথা তুলে ধরেন। বক্তাগন বলেন, আকাবির ও পূর্বসূরীদের আমানত এই মহান সংগঠনের সাথে সম্পর্ক বজায় রেখে যুযোপযোগী দ্বিনী খেদমত আঞ্জাম দেওয়া পরম সৌভাগ্যের ব্যাপার।
বক্তাগন উন্নত চরিত্র ও মাজির্ত ব্যবহার ও ঐক্যবদ্ধতার মাধ্যমে সাফল্য অর্জন ইসলামী আন্দোলনের ময়দানে সময়ের সবচেয়ে বড় দাবী বলে উল্লেখ করেন।
মাওলানা জুনায়েদ আল হাবীব বলেন, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম একটি ঐতিহ্যবাহী ইসলামী রাজনৈতিক দল, শত বর্ষরের ঐতিহ্যে লালিত সর্বপ্রচীন এই দলের ঐতিহাসিক কোরবানীর বিনিময়ে আজ আমরা স্বাধীন। তিনি বলেন, এই গত এপ্রিলে জমিয়তের শতবার্ষিকী সম্মেলন সম্পন্ন হল, সেখানে প্রায় ৭০ লাখ মানুষের সমাগম হয়েছিল।
কাবার ইমাম, দেওবন্দের মোহতামিম, সৌদি ধর্মমন্ত্রী, চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন ধর্মগুরু প্রধানরা বক্তব্য প্রদান করেরন।
এই সম্মেলন থেকে বিশ্ব মানবতার কাছে ইসলামের শান্তির দাওয়াত প্রদান করেন বিশ্ব মুসলিম নেতাগন। তিনি বলেন, বিগত ৪৬ বছর বাংলাদেশে ধর্ম এবং রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যেকোন ষড়যন্ত্রের মোকাবেলায় রুখে দাঁড়িয়েছে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম। তিনি বলেন, আজ দেশের স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্ব হুমকির সম্মুখিন। দেশের স্বাধীনতা থাকলে ইসলাম থাকবে, এবং ইসলাম থাকলে দেশের স্বাধীনতা থাকবে। তিনি জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ইউকের কার্যক্রমের ভূয়শী প্রশংসা করেন।
মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনছারী বলেন, আল্লাহর বিধান সর্বকালের জন্য প্রযোজ্য। কারন তিনি হলেন আমাদের সৃষ্টিকর্তা। তার দেয়া বিধানই হবে আমাদের জন্য কল্যানকর। তিনি বলেন, যতদিন পর্যন্ত আল্লাহর জমিনে আল্লাহর আইন প্রতিষ্ঠিত না হবে ততদিন পর্যন্ত শান্তি প্রতিষ্ঠিত হবে নান। তিনি বলেন, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম হল সর্বপ্রচীন একটি ইসলামী দল। বর্তমানে যে কয়টি ইসলামী দল বিদ্যমান এই সবগুলো এর সাথে সম্পৃক্ত, আমরা যদি ঐক্যবদ্ধ হয়ে যাই, তবে আমাদেরকে রুখবার কেউ নেই। তিনি সকলকে ব্যক্তিজীবন ও রাস্ট্রীয় জীবনে ইসলাম প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সাথে শরিক হওয়ার আহবান জানান।








Powered by Blogger.