Header Ads

কাতারের হজযাত্রীদের জন্য সৌদির সীমান্ত খোলার নির্দেশ

.
কাতারের হজযাত্রীদের জন্য সৌদি আরবের সালওয়া সীমান্ত খুলে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বাদশাহ সালমান। জুন মাস থেকে কাতারের সঙ্গে সৌদির নেতৃত্বাধীন মধ্যপ্রাচ্যের চার দেশের মধ্যে চলমান টানাপোড়নের মধ্যে গতকাল বুধবার এই নির্দেশ দেন বাদশাহ সালমান।
সৌদি বার্তা সংস্থার এক বিবৃতিতে বলা হয়, কাতারের যেসব নাগরিক হজ পালনে আগ্রহী তারা সালওয়া সীমান্ত দিয়ে সৌদি আরবে প্রবেশ করতে পারবে। তবে তাদের ‘ইলেকট্রনিক পারমিশন’ গ্রহণ করতে হবে।
সৌদি আরব সহ মিশর, বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত গত জুন মাস থেকে কাতারের সঙ্গে সকল ধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে। কাতারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে মদতের অভিযোগে এই সিদ্ধান্ত নেয় মধ্যপ্রাচ্যের চার দেশ।
বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, হজ পালনে ইচ্ছুক কাতারের নাগরিকরা সৌদি আরবের দুইটি বিমানবন্দর দিয়ে আসতে পারবে। সৌদি যুবাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ও কাতারের শেইখ আবদুল্লাহ বিন আলী বিন আবদুল্লাহ বিন জসিম আল-থানির বৈঠকের পর এই মূলত এই ঘোষণা আসে।
এর আগে গত ২০ জুলাই রিয়াদ জানায়, এ বছরের হজ পালনে ইচ্ছুক কাতারের নাগরিকরা সৌদি আরবে প্রবেশের সুযোগ পাবেন। তবে তাদের কঠোর বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে।
যদিও রিয়াদ কাতারের হজ যাত্রীদের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিতে এতোদিন ধরে অস্বীকার করে আসছিল। এরপর কাতার সৌদি আরবের বিরুদ্ধে তাদের হজ যাত্রীদের বাধা দেয়ার অভিযোগ আনে।
ইসলামের অন্যতম এ স্তম্ভ নিয়ে প্রতিবন্ধকতামূলক নীতি গ্রহণ করায় এ মন্ত্রণালয় রিয়াদকে অভিযুক্ত করেছে।
ইসলামের অন্যতম এ স্তম্ভ নিয়ে প্রতিবন্ধকতামূলক নীতি গ্রহণ করায় কাতারের অনেক মুসলিম এবছর পবিত্র হজ পালন করা থেকে বিরত থাকতে পারে।
জানা যায়, কাতারের প্রায় ২০ হাজার নাগরিক এবারের হজে অংশ নিতে নিবন্ধন করে।
Powered by Blogger.