Header Ads

শেখ মুজিব সম্পর্কে মুফতি মাহমুদের রাহঃ মন্তব্য

শেখ মুজিব সম্পর্কে মুফতি মাহমুদের রাহঃ মন্তব্য 



মুফতি মাহমুদ রাহ.। পাকিস্তান জমিয়তের এক সময়ের প্রধান। পাকিস্তান জমিয়তের বর্তমান প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান সাহেবের আব্বা। 
মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে তিনি বাংলাদেশ সফর করেন, বাংলাদেশের নির্যাতিত মানুষের বাস্তব অবস্থা ও শিয়াপ্রভাবিত পাকিস্তানের জালিম সেনাবাহিনীর জুলুম দেখে বলেন, 'বাংগালী মুসলমানরা হচ্ছে মজলুম'। অন্য একটি প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'শেখ মুজিব হচ্ছে সুন্নী আর জুলফিকার আলী ভুট্টো হচ্ছে শীয়া'!
.
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রাহমানকে আমরা সুন্নী হিসেবেই জানি। কিন্তু ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে শীয়াদের ১০ মহররমের তাজিয়া মিছিলে মাতম করার কায়দায়, হাজী ইকবালের মাতম করার দৃশ্য দেখে দ্বিধায় পড়ে গেছি, আসলে শেখ মুজিবুর রহমান কী ছিলেন? শীয়া ছিলেন না সুন্নী?
.
মৃত ব্যক্তিকে কেন্দ্র করে সুন্নী মুসলমানদের মধ্যে অনেক বিদআত-কুসংস্কার বিদ্যমান থাকলেও মৃত ব্যক্তির জন্যে শীয়া কায়দায় মাতম করার দৃশ্য এই প্রথম দেখলাম। তাই বঙ্গবন্ধুর পরিচয় নিয়ে দ্বিধায় পড়াটা স্বাভাবিক।
.
আহমদ ছফা বলেন, 'প্রতিটি রাষ্ট্র নিজস্ব প্রয়োজনে ইতিহাসকে বিকৃত করে'।
একথার শতভাগ সত্যতা আমরা বঙ্গবন্ধুর জীবনে পাই।
ছোটকালে আমরা যে বঙ্গবন্ধুকে জেনেছিলাম, বর্তমান বঙ্গবন্ধু আর সে বঙ্গবন্ধুর মধ্যে অনেক পার্থক্য।
এক সময় আমরা ১৫ আগষ্টকে জানতাম জাতীয় শোক দিবস তো দূরের কথা, বরং শেখ মুজিবের মৃত্যু বার্ষিকী হিসেবে, আর আজ জানি শাহাদত দিবস হিসেবে।
একসময় জানতাম শেখ মুজিব ছিলেন ইসলামবিদ্বেষী স্বৈরাচারী জালিম শাসক, আর আজ জানি তিনি ছিলেন একজন ন্যায়পরায়ণ ইসলামহিতৈষী খলীফাতুল মুসলিমীন।
সবাই শেখ মুজিবকে নিজেদের স্বার্থের অনুকূলে পরিচিত করছে।
.
শিশু আর যুবক বয়েসের মধ্যেই যদি শেখ মুজিবের পরিচয়ের এত ভিন্নতা পাই, তাহলে না জানি যুবক ও বৃদ্ধবয়েসের ভেতরে শেখ মুজিবকে আরো কত পরিচয়ে জানবো। ওয়াল্লাহু আ'লাম!!
Powered by Blogger.