Header Ads

তাহলে তো রাষ্ট্রপতিও অবৈধ: আলাল

বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেছেন, বর্তমান জাতীয় সংসদ যদি অবৈধ হয়, তাহলে রাষ্ট্রপতিও অবৈধ।সোমবার বিকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের আবদুল খালেক মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।আরাফাত রহমান কোকোর ৪৮তম জম্মবার্ষিকী উপলক্ষে আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি সংসদ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা শাখা এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।আলাল বলেন, ‘আওয়ামী লীগের এক নেতা বলেছেন- সংসদ অবৈধ হলে প্রধান বিচারপতির নিয়োগও অবৈধ। ওই নেতার কথা অনুয়ায়ী তাহলে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী সবাই অবৈধ।’
তিনি বলেন, ‘এই রাষ্ট্রপতি বিগত ২০০৮ সালের নির্বাচনের সংসদ দ্বারা নির্বাচিত। বর্তমান সংসদতো রাষ্ট্রপতি নির্বাচন করেনি। এই রাষ্ট্রপতির কাছে শপথ নেয়া প্রধান বিচারপতি অবৈধ হলে রাষ্ট্রপতি বৈধ থাকেন কী করে? তাহলে রাষ্ট্রপতিও অবৈধ।’বিএনপির এই নেতা বলেন, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সবাইকে রাবিশ বলতে বলেতে নিজে রাবিশ হয়ে গেছেন। অর্থমন্ত্রীর এই ভাষা প্রয়োগ করে সাবেক প্রধান বিচারপতি খাইরুল হককে কী বলা যায়? অর্থমন্ত্রী রাবিশ হলে খায়রুল হকও খবিশ।’
আরাফাত রহমান কোকো প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘তিনি কোনো রাজনৈতিক নেতা ছিলেন না। তারপরও কোনো প্রকার প্রচার-প্রচারণা ছাড়াই তার জানাজায় রেকর্ড সংখ্যক মানুষ অংশ নিয়েছিল। এতে প্রমাণ হয় জিয়া পরিবারের প্রতি দেশের মানুষের ভালোবাসা কী রকম।’আলাল আরও বলেন, ‘কোনো রকমের অপরাধ না করেও গত আট বছরে সাড়ে চার বছর জেলে ছিলাম। অথচ দেশ থেকে দুর্নীতির মাধ্যমে অনেক টাকা পাচার করা হয়েছে। পানামা পেপার্সে তাদের নামও এসেছে। পানামা পেপার্স কেলেঙ্কারীর বিচার বিভাগীয় তদন্ত করতে হবে।’
সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর প্রমুখ।
poriborton
Powered by Blogger.