Header Ads

রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর নির্যাতন বন্ধ করে নাগরিক অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে: হেফাজত ঢাকা মহানগর

 

হেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগরীর সভাপতি আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী মায়ানমারের রাখাইন রাজ্যে নিরীহ মুসলমানদের উপর নির্যাতন ও তাদের ঘর-বাড়ি জালিয়ে দেওয়ার তিব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, মায়ানমার সরকার রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান না করে কিছু দিন পরপর রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর অমানুষিক নির্যাতন ও তাদের ঘর-বাড়ি জালিয়ে বারবার মানবাধিকার লঙ্গন করছে। অথচ জাতিসংঘ বাস্তবধর্মী কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না।

তিনি মায়ানমার সরকারকে অবিলম্ভে নিরীহ মুসলমানদের উপর নির্যাতন বন্ধ করে তাদের মানবিক ও নাগরিক অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য জোর দাবী জানান। আল্লামা কাসেমী রাখাইন রাজ্যে মুসলিম নিধন বন্ধ করতে এবং রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধান করতে মায়ানমার সরকারের প্রতি বাংলাদেশ সরকারকে চাপ সৃষ্টি করতে আহবান জানান। এবং আগামী ১লা সেপ্টেম্বর/১৭ রোজ শুক্রবার বাদ জুমা বায়তুল মোকাররম উত্তর গেইটে বিক্ষোভ সমাবেশের কর্মসূচী ঘোষনা করেন। আজ জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা মিলনায়তনে ঢাকা মহানগরীর হেফাজত নেতৃবৃন্দের এক জরুরী মিটিংয়ে এসব কথা বলেন।
কর্মসূচী সফল করার জন্য হেফাজতের সর্বস্তরের নেতা-কর্মী ও তৌহিদী জনতার প্রতি আল্লামা কাসেমী উদাত্ত আহবান জানান।
মিটিংয়ে যারা উপস্থিত ছিলেন, হেফাজত ঢাকা মহানগরীর সহসভাপতি মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী, মাওলানা মাহফুজুল হক, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা ফজলুল করীম কাসেমী, মাওলানা শেখ গোলাম আছগর, মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, মাওলানা লোকমান মাযহারী, মাওলানা মূছা বিন এজহার, মুফতী আব্দুস সাত্তার, মাওলানা শরীফুল্লাহ ও মাওলানা ফয়সাল আহমদ প্রমূখ।


Powered by Blogger.