Header Ads

সরকারকে বলছি, বন্যার মত গজব থেকে মুক্তি পেতে তাওবাহ করুন, আল্লামা কাসিমি

দেশবাসী ও সরকারের নাফরমানীর কারণে দেশ ও জাতি বন্যা, খাদ্যসংকট ও দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির গজবে নিপতিত। এসব গজব থেকে মুক্তি পেতে মহান আল্লাহর দরবারে পানাহ চাওয়ার জন্য পূর্বঘোষিত কর্মসূচী অনুযায়ী জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ঢাকা মহানগর গতকাল বাদ আসর রাজধানীর বিভিন্ন থানায় দোয়া মাহফিলের কর্মসূচী পালন করেছে।
উক্ত কর্মসূচীর অংশ হিসেবে ঢাকা মহানগর কমিটির উদ্যোগে বাইতুল মোকাররম মসজিদের পূর্ব চত্বরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী। সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর জমিয়তের সভাপতি মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী।
বক্তব্য রাখেন, দলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী। উপস্থিত ছিলেন মাওলানা জয়নুল আবেদীন, মুফতী জাকির হোসাইন কাসেমী, মুফতী বশীরুল হাসান খাদেমানী, মাওলানা হাফেজ ওমর আলী, মাওলানা হুজায়ফা ওমর ও সোহাইল আহমদ প্রমুখ।
সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে আল্লামা কাসিমি বলেন- দেশবাসী ও সরকারের নাফরমানীর কারণে দেশ ও জাতি আজ বন্যা, খাদ্যসংকট ও দ্রব্যমুল্য বৃদ্ধির গজবে নিপতিত। এ গজব থেকে মুক্তি পেতে আমরা আমাদের নাফরমানীর জন্য তাওবা করছি। আমরা সরকারকে বলছি মহান আল্লাহর গজব থেকে মুক্তি পেতে আল্লাহর নিকট পানাহ চান। গ্রীক দেবীর মূর্তিসহ রাজপথের প্রকাশ্য সকল মূর্তি অপসারণ করুন। মুসলমানদের পাঠ্যসূচীকে হিন্দুত্ব ও নাস্তিক্যবাদের পাঠ্যসূচী বানানোর চক্রান্ত বন্ধ করুন। আমরা এসব বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে দ্রুত হস্তক্ষেপ করার আহ্বান জানাচ্ছি। তাহলে আল্লাহ আমাদেরকে রক্ষা করবেন। অন্যথায় জনগণের তাওবার কারণে তাদেরকে আল্লাহ ক্ষমা করলেও সরকারের উপর আল্লাহর গজব আরও ভয়াবহ হতে পারে।
দলীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে যে সব থানায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে- কামরাঙ্গীরচর, চকবাজার, লালবাগ, হাজারীবাগ, মুগদা, খিলগাঁও, বাড্ডা, ভাটারা, খিলক্ষেত, দারুস্সালাম, শাহআলী, পল্লবী, উত্তরখান, দক্ষীণখান, তুরাগ ও কদমতলী।
Powered by Blogger.