Header Ads

কুড়িগ্রামে বন্যার্তদের সেবায় কওমি মাদরাসার ছাত্র শিক্ষকরা

কুড়িগ্রামের বন্যাদুর্গত ফুলবাড়ি উপজেলার আলেমগণ সাধারণ মানুষের সাহায্যে নানা উদ্যোগ নিয়ে এগিয়ে এসেছেন। তারা ব্যক্তিগত ও সম্মিলিত উদ্যোগ দুর্গত মানুষের মাঝে খাবার, পানি ও ওষুধ বিতরণ করছেন।
ফুলবাড়ির এলাকায় অবস্থিত কোনো না কোনো কওমি মাদ্রাসা প্রতিদিনই তৈরি খাবার বিতরণ করছেন দুর্গত মানুষের মাঝে। প্রতিদিন একশো থেকে দেঢ়শো প্যাকেট খাবার বিতরণ করছেন তারা। তবে চাহিদা অনেক বেশি।
কুড়িগ্রামের দারুল আযহার ক্যাডেট মাদরাসার পরিচালক মাওলানা ফেরদাউস হোসাইন আওয়ার ইসলামকে বলেন, ‘বন্যার পানি আসার পর থেকে আমরা এলাকার মানুষকে নানাভাবে সাহায্য সহযোগিতা করে আসছি। প্রয়োজন অনুযায়ী দিতে পারছি না। কিন্তু সাধ্যানুযায়ী চেষ্টা করছি।’মাওলানা ফেরদাউস আরও জানান, ইচ্ছে থাকার পরও আর্থিক কারণে তারা প্রতিদিন খাবার বিতরণ করতে পারছেন না। মাদরাসার ফান্ড, মানুষের সাহায্য ও ব্যক্তি উৎস থেকে কিছু টাকা জমলেই তিনি খাবার তৈরি করে বিতরণ করছেন।
শুধু খাবার বিতরণই নয় বরং আশ্রয়হীন মানুষের আশ্রয়ও মিলেছে মাদরাসায়। ফুলবাড়ি উপজেলার অপর একটি মাদরাসা সাবিলুর রাশাদ মাদরাসায় ৩য় তলায় আশ্রয় দেয়া হয়েছে বেশ কিছু বন্যার্ত মানুষকে।
সাহায্য ও ত্রাণ বিতরণের কাজ প্রত্যেক প্রতিষ্ঠান পৃথকভাবে করলেও পরস্পরকে সাহায্য করছেন প্রত্যেকে।  মাওলানা ফেরদাউস বলেন, ‘আমরা প্রত্যেকেই পৃথকভাবে মানুষকে সাহায্য করছি। কিন্তু যেদিন আমি আয়োজন করতে পারছি না, সেদিন অন্য যে আয়োজন করছে তাকে সাহায্য করছি।’
Powered by Blogger.