Header Ads

নাইজেরিয়ান দুই হাজী সৌদি নিরাপত্তা কর্মীদের হাতে হেনস্থার ঘটনায় ক্ষমা চাইল সৌদি

পবিত্র মদীনায় নিরাপত্তাকর্মীদের কাছে হেনস্তা হয়েছেন দুই হজযাত্রী। সোমবার নাইজেরিয়ার দুই হজযাত্রীকে মারধরের ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছে সৌদি আরব।
মদীনার আল সালাম মানকাজিয়া স্ট্রিটের ওয়াফেদা আল জাহরা হোটেলে মারধরের শিকার হওয়া হজযাত্রীদের দেখতে গিয়ে রাজপরিবারের পক্ষ থেকে তাদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন হজ এবং ওমরাহ প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলবিজায়ী।
তিনি এ ধরনের দুর্ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তবে এ ধরনের ঘটনার পুণরাবৃত্তি হবে না বলেও নিশ্চিত করেছেন তিনি।
আলবিজায়ী বলেছেন, হজযাত্রীদের সঙ্গে এ ধরনের অপমানজনক ঘটনা সৌদি কর্তৃপক্ষ কখনই মেনে নেবে না। যারা হজযাত্রীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছেন তাদের শাস্তি দেয়া হবে বলেও নিশ্চিত করেছেন তিনি।
তিনি আরো বলেন, হজযাত্রীদের সব সময়ই ভালোভাবে স্বাগত জানিয়েছে সৌদি। তাদের সেবায় কোনো ধরনের ত্রুটি রাখেননি তারা। নাইজেরিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের হজযাত্রীদের প্রয়োজনীয় সেবা দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ সৌদি। কিন্তু আজ আমরা এখানে কেন এসেছি? নিরাপত্তাকর্মীদের হাতে দুই হজযাত্রী হেনস্তা হয়েছেন বলেই এখানে আসতে হয়েছে।
এখানে আমরা দুঃখ এবং অনুশোচনা প্রকাশ করতে এসেছি। একই সঙ্গে আমরা আপনাদের এটা নিশ্চিত করতে এসেছি যে, এ ধরনের ঘটনা আর কখনই ঘটবে না।
যা কিছু ঘটেছে তার জন্য বাদশাহ সালমানের পক্ষ থেকে, মদীনার গভর্নরের পক্ষ থেকে এবং সৌদির রাজকীয় সব নেতার পক্ষ থেকে আমরা আরো একবার ক্ষমা চাচ্ছি। আমরা আপনাদের আশ্বস্ত করছি যে, সৌদি এ ধরনের ঘটনা কখনই মেনে নেবে না।
সৌদিতে নিযুক্ত নাইজেরিয়ার রাষ্ট্রদূত উমার সালিসা জানিয়েছেন, ওই ঘটনায় দোষীদের কি ধরনের শাস্তি দেয়া হবে সে বিষয়টি মদীনার গভর্নর তাকে নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, দোষীদের শাস্তির আওতায় এনে এবং নাইজেরিয়ার হজযাত্রীদের যেভাবে কোনো ভয় বা হেনস্তা ছাড়াই হজ পালনের নিশ্চয়তা দিয়েছে সৌদি সেটা আমরা সমর্থন করি।
সালিসু আরো বলেন, সৌদি কর্তৃপক্ষের দাবী এমন ঘটনা এই প্রথম ঘটেছে এবং এটাই শেষ। এ ধরনের ঘটনা আর কখনই ঘটবে না।
Powered by Blogger.