Header Ads

তাবলীগের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে দারুল উলূম দেওবন্দের মসজিদে রশীদে প্রদত্ত ভাষনে সদরে জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ আল্লামা আরশাদ মাদানী দা.বা এর চুম্বকাংশ !

তাবলীগের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে দারুল উলূম দেওবন্দের মসজিদে রশীদে প্রদত্ত ভাষনে আল্লামা আরশাদ মাদানী দা.বা এর চুম্বকাংশ !
--------------------------------------------------------
তাবলীগের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে দারুল উলূম দেওবন্দের মসজিদে রশীদে প্রদত্ত ভাষনে আল্লামা আরশাদ মাদানী দা.বা. বলেন,
‘আমাকে মাওঃ সা’দ সাহেব দাওয়াত করেছিলেন, আমি ওনার আমন্ত্রণে নিযামুদ্দীন গিয়েছিলাম, সেখানে ওনার শশুর মাওঃ সালমান সাহেব ও ওনার দুই ছেলেও উপস্থিত ছিল,
দীর্ঘ সময় সংকট নিরসন নিয়ে আলোচনা হয়েছে, মাওঃ সা’দ সাহেব প্রায় আধা ঘন্টা যাবৎ তার দাবী-দাওয়া, অভিযোগ ইত্যাদী পেশ করেছেন,
তখন আমি ওনাকে জিজ্ঞাসা করলাম ‘আচ্ছা আমাকে এটার উত্তর দিন যে, মারকাযের মুরুব্বীগন যারা আপনার দাদার সাথে তাবলীগের কাজ করেছেন এবং অদ্যবধি তাবলীগ নিয়েই ছিলেন তারা আজ কেন মারকায ছেড়ে চলে গেছেন ?
আমার এই প্রশ্নের কোনো উত্তর দিতে পারেন নি সা‘দ সাহেব, তিনি বিলকুল খামূশ ছিলেন, এবং ওনার শশুর মুখে স্বীকার করেন যে আমাদের কাছে এর কোনো উত্তর নেই,
তখন আমি মাওঃ সা’দ সাহেব কে বললাম তাবলীগের মূল হলেন আপনার পরদাদা, আপনার দাদাও মৃত্যু পর্যন্ত তাবলীগ নিয়ে ছিল, আপনার বাবাও তাবলীগের যিম্মাদার ছিল,
সুতারাং কে আপনার এমারাত ও সিয়াদাতকে ছিনিয়ে নিবে ??!!,
কার শক্তি আছে আপনারা এমারাত কে চেলেঞ্জ করবে ??!!
কিন্তু এই এমারাত নিয়ে যেই বিবাদ শুরু হয়েছে এবং তাবলীগের কাজে যেই ভয়াবহ পরিস্থিতি ও ফাটল সৃষ্টি হয়েছে তার সমাধান কে করবে ??!!!
তা তো আপনারই করতে হবে ! কারণ এই জামাত তো আপনারই বাপ-দাদার প্রতিষ্ঠিত।
সুতারাং আমার অনুরোধ আপনি একটু নরম হোন, কিছুটা ছাড় দিন, এক সিঁড়ি নিচে নেমে আসুন, বিশ্ব ব্যাপী এই পবিত্র জামাত কে বাচান।
অতঃপর তিনি আমাকে আশ্বাস দেন যে চলমান সংকট নিরসনে তিনি আন্তরিক হবেন।
কিন্তু কিছুই হয়নি, আমার চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে, আমি নিরাশ হয়েছি।
কিন্তু আমার গত কয়েকটি দেশের সফরে বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে যে ভয়াবহ পরিস্থিতি দেখেছি, তাতে পুনরায় আমি ইচ্ছা করেছি যে আবার মারকাযে যাবো, সমাধানের পথ বের করার চেষ্টা করবো।
আমি মাওঃ সা‘দ সাহেব কে অনুরোধ করবো যে এই উম্মত কে হারফ ও ইনতিশার থেকে বাচান, সমাধানের পথে আসুন, আপনার হাতের মুঠোয় এর সমাধান, আপনার দুই আঙ্গুলের মাঝেই সব কিছু, সুতারাং আপনি চাইলেই এর সমাধান সম্ভব, আপনিই পারবেন।
Powered by Blogger.