Header Ads

পবিত্র কা’বা শরীফের অবমাননাকারীদের প্রতিহত করা ঈমানী দায়িত্ব: জমিয়ত

পবিত্র কা’বা শরীফের অবমাননাকারীদের প্রতিহত করা ঈমানী দায়িত্ব: জমিয়ত


পবিত্র কা’বার সাথে দুনিয়ার সমস্ত মুসলমানদের আত্মা ও ঈমানের সম্পর্ক। পবিত্র কুরআনের সূরা মায়েদার ৯৭নং আয়াতের মর্মার্থ অনুযায়ী কা’বা ঘর হচ্ছে গোটা পৃথিবীর অস্তিত্ব ও স্থিতিশীলতার খুঁটি। এই ঘর না থাকলে পৃথিবীর স্থিতিশীলতা ও নিরাপত্তা কিছুই থাকবে না। সূরা আল- ইমরানের ৯৬ নং আয়াতে বলা হয়েছে- নিঃসন্দেহে সর্ব প্রথম ঘর যা মানুষের জন্য নির্ধারিত হয়েছে সেটাই হচ্ছে এই কা’বা ঘর যা মক্কায় অবস্থিত এবং সারা পৃথিবীর মানুষের জন্য এই ঘর হচ্ছে হেদায়েতের উৎস ও বরকতময়। সূতরাং পবিত্র কা’বা শরীফের উপর হিন্দু ধর্মের শিব মূর্তি বসিয়ে যারা স্ট্যাটাস পোস্ট দিয়ে ধৃষ্টতা দেখিয়েছে ফাঁসী ছাড়া অন্য কোন শাস্তি তাদের জন্য যথেষ্ট নয়।
আজ জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী ও যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী একযুক্ত বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।
তাঁরা বলেন এই কুলাঙ্গার শিপন দাসকে অবিলম্বে ফাঁসী দিতে হবে এবং পবিত্র কা’বার অবমাননাকারীদের যে কোন মূল্যে প্রতিহত করতে হবে। এটা মুসলমানদের ঈমানী দায়িত্ব।
নেতৃদ্বয় আরো বলেন, আইনের ফাঁকফোকরে কোনভাবেই যেন শিপন দাসের মত অপরাধীরা জামিন না পায় তা সরকার ও বিচার বিভাগকে নিশ্চিত করতে হবে।
ইনসাফ 
Powered by Blogger.