Header Ads

ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে সংকটাপন্ন অবস্থায় আইসিইউ’তে মেয়র আনিসুল হক


ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে সংকটাপন্ন অবস্থায় সেন্ট্রাল লন্ডনের একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আনিসুল হক। বর্তমানে তাকে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে।

লন্ডনে অসুস্থ্য হয়ে পড়া কে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়েছে। বর্তমানে তিনি লন্ডন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। প্রায় দুই মাস ধরে মেয়র এই রোগে আক্রান্ত বলে জানা গেছে। তাঁর এই অসুখ বাংলাদেশে ধরা না পড়লেও তিনি প্রায় দুই মাস যাবৎ একাধিক শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন।

এর আগে প্রায় এক মাস ধরে তিনি লন্ডনে অবস্থান করছিলেন। মেয়ের সন্তানের জন্ম উপলক্ষে গত ২৯ জুলাই ব্যক্তিগত সফরে সপরিবারে লন্ডনে যান ৬৫ বছর বয়সী আনিসুল হক। চার দিন আগে অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাঁকে সেন্ট্রাল লন্ডন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মেয়রের ঘনিষ্ঠ একটি সুত্র সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানিয়েছেন, আনিসুল হক ‘সেরিবেল ভ্যাসকিউলিটিস’ নামে একটি মস্তিষ্কের রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। ঐ সুত্রটি আরও জানায়, আগে বেশ কবার পরীক্ষা করালেও ঢাকার চিকিৎসকরা এই রোগ শনাক্ত করতে পারেননি।

মেয়রের ব্যক্তিগত সচিব মিজানুর রহমান এক মুঠোফোন বার্তায় গণমাধ্যমকর্মীদের জানান, গত ২৯ জুলাই আনিসুল হক মেয়ের সন্তানের জন্ম উপলক্ষে লন্ডন যান। সেখানেই ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হলে গত ১৩ আগস্ট তাকে লন্ডনের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
আজ বুধবার মেয়রের ব্যক্তিগত সহকারী মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে আরও বলেন, গত চার দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি অবস্থায় রয়েছেন ঢাকা উত্তরের এই মেয়র, এর মধ্যে ২ দিন ধরে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে।

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশ হাই কমিশনের প্রেস মিনিস্টার নাদিম কাদির গনমাধ্যমকে জানিয়েছেন, আনিসুল হক সেরিব্রাল ভাসকুলাইটিসে (মস্তিষ্কের রক্তনালীর প্রদাহ) আক্রান্ত হয়েছেন। তার স্ত্রী রুবানা হক সবার দোয়া চেয়েছেন।”
নাদিম কাদির আরও জানান, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল রুবানা হককে ফোন করে খোঁজ খবর নিয়েছেন। তিনি মেয়রের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন।”

আনিসুল হকের পারিবারিক সুত্রমতে, চিকিৎসকেরা তাঁকে স্টেরয়েডসহ বিভিন্ন ওষুধ দিয়েছেন। তিনি এখন আইসিউতে আছেন। চিকিৎসকেরা তাঁকে পুরো বিশ্রামে থাকতে ও কথা বলতে নিষেধ করেছেন।

মেয়রের সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন তার পরিবার ও তার বন্ধু-সুহৃদরা।
Powered by Blogger.